শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

ছেলেকে নৃশংস কায়দায় হত্যার পর পুলিশের কাছে নিজের ফাঁসি চাইলেন বাবা

যশোরে নুরুল ইসলাম নামে এক কতৃক নিজের সন্তান রুহুল আমিনকে (১৬) হত্যার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকালে এ ঘটনায় অভিযুক্ত নুরুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকের পর অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম পুলিশের কাছে নিজের ফাঁসি দাবি করেন।

এর আগে গতকাল রোববার দিবাগত রাতে যশোর সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের পূর্ব চাঁদপাড়া গ্রামে এই হত্যাকাণ্ড ঘটে।

আটক বাবার স্বিকারোক্তির বরাতে পুলিশ জানায়, প্রথমে ইলেকট্রিক শক দিয়ে পরে শ্বাসরোধ করে ছেলেকে হত্যা করে নুরুল ইসলাম।

এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে নুরুল ইসলাম ছেলে রুহুল আমিনকে হত্যা করেছে বলে জানতে পেরেছে

পুলিশ। ঘটনার দিন নিহত রুহুল আমিন নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় বাবা নুরুল ইসলাম প্রথমে ছেলের বাম পায়ে বৈদ্যুতিক তার পেঁচিয়ে ইলেকট্রিক শক দেন। এতে মৃত্যু না হওয়া পরে

গলায় গামছা পেঁচিয়ে আধা ঘণ্টা ধরে নির্যাতন করে তাকে হত্যা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ নুরুল ইসলামকে আটক করে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি ।

অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম বলেন, ‘জমি বিক্রি করে ৪১ লাখ টাকা সংসারের পেছনে খরচ করেছি। এখন পরিশ্রম করতে পারি না। স্ত্রী ও ছেলে মিলে আমাকে অমানুষিক নির্যাতন করত। ছেলেকে হত্যা না করে কোনো উপায় ছিল না। আমি আমার ফাঁসি চাই।



Comments are Closed

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: