শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

কর্দমাক্ত রাস্তায় মটরসাইকেল-আ্যম্বুলেন্স মুখমূখি সংঘর্ষ:নিহত দুই,আহত এক

স্টাফ রিপোর্টার,কলারোয়া(সাতক্ষীরা) গতকাল শুক্রবার(১৮ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে সাতক্ষীরা-খুলনা সড়কের ঋ’শিল্পী নামক স্থানে মটর সাইকেল-আ্যম্বুলেন্স মুখমূখি সংঘর্ষে মটরসাইকেল আরোহী ৩ জনের মধ্যে দুইজন নিহত এবং একজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ৩ জনকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হলে রাত ১০ টার দিকে মটর সাইকেল আরোহী শাহ মোঃ বজলুর রহমান(৫৫) এবং সাড়ে ১০ টার দিকে চালক আব্দুস সালাম(৩৫) মারা যায়,আহত হাফিজুল ইসলাম(৫৪) সেখানে চিকিৎসা অবস্থায় রয়েছে। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত হাফিজুল ইসলাম জানান, তাকে ও বজলুর রহমানকে নিয়ে আব্দুস সালাম একটি নাম্বার বিহীন নীল রং এর এপাচি মোটর সাইকেল চালিয়ে পাটকেলঘাটা থেকে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে ঋ’শিল্পীর সামনে একটি কালভার্টে বেতনা নদী খননের মাটি রাস্তার উপর পড়ে থাকায় চাকা পিছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীতমুখী একটি আ্যম্বুলেন্স(ঢাকা মেট্রো-ছ-৭১-০৫৩৬) এর সঙ্গে ধাক্কা খায়, এতে করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে রাত ১০টার দিকে বজলু ও সাড়ে ১০টার দিকে সালাম মারা যায়। তিনি গুরুতর জখম অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত-আহতদের ঠিকানা- সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোলের কাদির ফকিরের ছেলে শাহ মোঃ বজলুর রহমান (৫৫), একই এলাকার ময়েন ড্রাইভারের ছেলে আব্দুস সালাম (৩৫)। আহত ব্যক্তি হলেন পলাশপোলের নজরুল ইসলামের ছেলে হাফিজুল ইসলাম (৫৪)। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ আসাদুজ্জামান নূর জানান, বজলু ও সালামের মৃত্যু হয়েছে। তবে হাফিজুর রহমান চিকিৎসাধীন রয়েছে। কাটিয়া(সাতক্ষীরা) পুলিশ ফাঁড়ির সহকারি উপ-পরিদর্শক কিশোর রায় জানান, দুর্ঘটনা কবলিত মোটর সাইকেল ও আ্যম্বুলেন্স জব্দ করে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে। রাস্তার উপর পড়ে থাকা বেতনা নদী খননের মাটি বৃষ্টিতে ভিজে রাস্তা পিছলে দুর্ঘটনার ফলে দুটি প্রাণের বিদায় জানাতে হলো। স্থানীয়রা বলছেন অতি দ্রুত রাস্তার উপর থেকে মাটি না সরালে যে কোন সময় আবারও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।


Comments are Closed

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: