শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

নুপুর শর্মার পক্ষে ফেসবুকে স্টাটাস, অধ্যক্ষ ও ছাত্রকে জুতার মালা

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে কটুক্তিকারী নুপুর শর্মার পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেওয়ায় নড়াইলে মীর্জাপুর ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ

স্বপন কুমার বিশ্বাস ও শিক্ষার্থী রাহুলকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (১৮ জুন) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।
্স্থা্নী য়রা জানায়, নড়াইলে মীর্জাপুর ডিগ্রী কলেজের কলেজের শিক্ষার্থী রাহুল মাহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

সম্পর্কে কটুক্তিকারী নুপুর শর্মার পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেন। কলেজের অন্য শিক্ষার্থীরা বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাকে মুছে ফেলার জন্য অনুরোধ করেন। কথা না শোনায়

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসের কাছে জানালে তিনিও রাহুলের পক্ষ নিয়ে কথা বলে কলেজের অন্য শিক্ষার্থীদের বের করে দেন।

এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে কলেজ ক্যাম্পাসে আশেপাশের লোকজন এসে কলেজ ঘিরে রাখে। উত্তেজিত জনতা এ সময় ৩টি মোটরসাইকেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষন করে। সংবাদ পেয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় (পিপিএম বার),

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শওকত কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাস ও অভিযুক্ত রাহুলকে উদ্ধার থানায় নিয়ে আসে পুলিশ এ বিষয়ে জানতে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)

শওকত কবিরের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। নড়াইলের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা

অধ্যক্ষসহ অভিযুক্তকে নিয়ে এসেছি। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে কয়েক রাউন্ড গ্যাস ছোড়া হয়েছে। স্বপন কুমার বিশ্বাস ও শিক্ষার্থী রাহুলের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।



Comments are Closed

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: