শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪

শাহরুখের ‘জওয়ান’ নিয়ে কটাক্ষের শিকার ঋদ্ধি ডোগরা

শাহরুখের ‘জওয়ান’ নিয়ে কটাক্ষের শিকার ঋদ্ধি ডোগরা

প্রযোজনার মাধ্যমে হাতেখড়ি ঋদ্ধি ডোগরার। এরপর নৃত্যশিল্পী ও সঞ্চালক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। সেখান থেকে ছোট পর্দায় অভিনয়। ক্যারিয়ারে সাফল্যের সিঁড়িতে ওঠার ধাপে বলিউডের ‘বাদশা’ শাহরুখ খানের সঙ্গেও অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন তিনি। কিন্তু একই সিনেমায় অভিনয় করলেও পরে দেখা কেন মিলল না ঋদ্ধির? ‘জওয়ান’ সিনেমার প্রিভিউ বা প্রথম ঝলক মুক্তির পরেই উঠেছে সেই প্রশ্ন।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের গোড়ায় মুক্তি পেতে চলেছে দক্ষিণী পরিচালক অ্যাটলি পরিচালিত সিনেমা জওয়ান। শাহরুখের পাশাপাশি এই সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে দক্ষিণী তারকা বিজয় সেতুপতি ও নয়নতারাকেও।

জওয়ানের পার্শ্বচরিত্রগুলোও নজরকাড়া। সান্য মালহোত্র, প্রিয়মণি, সুনীল গ্রোভার ও যোগী বাবুকে এ সিনেমার পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। ক্যামিও চরিত্রে নজর কাড়তে চলেছেন দীপিকা পাড়ুকোনও।

জওয়ান সিনেমার প্রথম ঝলকে মুখ্য চরিত্রের পাশাপাশি সমস্ত পার্শ্বচরিত্রের মুখ দেখানো হলেও সেই তালিকা থেকে কি তবে বাদ পড়ে গেলেন ঋদ্ধি? জওয়ান সিনেমায় পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করেছেন ঋদ্ধিও।

প্রথম ঝলক হিসেবে জওয়ান সিনেমার যে ভিডিওটি মুক্তি পেয়েছে সেখানে দর্শক এক মুহূর্তের জন্যও দেখা পেলেন না ঋদ্ধির। তা নিয়ে নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হয়েছেন তিনি।

এক টুইটার ব্যবহারকারী ঋদ্ধিকে উদ্দেশ করে লেখেন, প্রথম ঝলকে শাহরুখ খানকে ৩০ বার দেখে ফেললাম। কই আপনার দেখা পেলাম না তো? তার উত্তরে যদিও চুপ করে ছিলেন না ঋদ্ধি। তিনি টুইট করে লেখেন, আপনি শাহরুখকে ৩০ বার দেখতে পেয়েছেন। আর কী-ই বা চাই?

ঋদ্ধির এক অনুরাগী দুঃখপ্রকাশ করে টুইট করেন, অসংখ্য বার জওয়ান সিনেমার প্রিভিউ দেখলাম। কিন্তু আপনাকে একটি বারের জন্যও দেখতে পেলাম না। এর উত্তরে ঋদ্ধি টুইটারে লেখেন, আপনি সিনেমাটিও অসংখ্যবার দেখুন।

বারবার নেটিজেনদের মন্তব্য চালাকির সঙ্গে এড়িয়ে গেছেন ঋদ্ধি। এর মধ্যে আরও এক ভক্তের প্রশ্ন, প্রিভিউতে তো আপনি নেই। সিনেমায় থাকবেন তো? ঋদ্ধি জানান, প্রথম ঝলকেও তিনি রয়েছেন। কিন্তু ঠিক কোন জায়গায় তা শুধু তিনিই জানেন।

ঋদ্ধির এক অনুরাগী আবার একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, প্রিভিউতে এক নারীকে দেখা গেছে এক শিশুকে ধরে থাকতে। ওই নারীই কী আসলে আপনি? তার উত্তরে শুধু একটি হাসির ইমোজি। তা হলে নীরব থেকেও সায় দিলেন ঋদ্ধি?

একাধিক হিন্দি ধারাবাহিকে কাজ করলেও ‘অসুর’ ওয়েব সিরিজে অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন ঋদ্ধি। ১৯৮৪ সালের ২২ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে জন্ম তার। বাবা-মা এবং ভাইয়ের সঙ্গে একই ছাদের তলায় থাকতেন তিনি।

স্কুলের গণ্ডি পার করার পর দিল্লির এক কলেজে মনোবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করেন ঋদ্ধি। তার পর নাচের বিশেষ প্রশিক্ষণ নেওয়া শুরু করেন তিনি।

এক প্রতিষ্ঠিত চ্যানেল সংস্থার একটি শোতে সহ-প্রযোজনার কাজের মাধ্যমে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেন ঋদ্ধি। ২০১২ সালে একটি বিশেষ শোর সঞ্চালনার দায়িত্বেও ছিলেন। কিন্তু ২০০৭ সাল থেকেই ছোট পর্দায় কাজ করতে শুরু করেন ঋদ্ধি।

২০১০ সালে একটি ধারাবাহিকে অভিনয়ের সূত্রে ঋদ্ধির আলাপ হয় তার সহ-অভিনেতা রাকেশ বশিষ্ঠের সঙ্গে। একই বছর ‘মর্যাদা: লেকিন কব তক?’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন ঋদ্ধি ও রাকেশ।

কাজের সূত্রে আলাপ হলেও ঋদ্ধি ও রাকেশের সম্পর্ক পূর্ণতা পায় ২০১১ সালে। সাত পাকে বাঁধা পড়েন দু’জনে। কিন্তু ২০১৯ সালে বিচ্ছেদের পথ বেছে নেন তারা।

রাকেশের সঙ্গে বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে ঋদ্ধি এক পুরোনো সাক্ষাৎকারে বলেন, আমরা দু’জন একে অপরের খুব ভাল বন্ধু। আমরা শুধুমাত্র দম্পতি হিসাবে একসঙ্গে থাকছি না। দু’জনের বন্ধুত্বে চিড় ধরবে না।

২০১৩ সালে ‘সাবিত্রী’ ধারাবাহিকে অভিনয় করার পর ছোট পর্দায় পরিচিতি তৈরি হয় ঋদ্ধির। নাচের একটি জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শোতেও অংশগ্রহণ করতে দেখা যায় তাকে।

২০২১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দ্য ম্যারেড ওম্যান’ ওয়েব সিরিজে তার অভিনয় সবার মনে ধরে। ক্যারিয়ারে লম্বা লাফ দিয়েছেন ঋদ্ধি। শাহরুখের সঙ্গে একই সিনেমায় অভিনয় করে নিজের ক্যারিয়ারে একটি মাইলফলক গড়ে তুলেছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের অনুরাগী মহলও তৈরি করে ফেলেছেন ঋদ্ধি। এখন পর্যন্ত ইনস্টাগ্রামে তার অনুরাগী সংখ্যা ১৮ লাখের গণ্ডি পার করেছে।



Comments are Closed

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: