বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২২

কলারোয়া সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল ছাত্র নিহত

সাতক্ষীরার কলারোয়া সড়ক দুর্ঘটনায় আবু রায়হান (২০) নামের এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে। সে উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের বাটরা গ্রামের শাহজাহান মুহুরীর ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কলারোয়া বাজারের প্রাণিসম্পদ অফিসের সামনে যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। আবু রায়হান কলারোয়া সরকারি জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুলের ভকেশনাল বিভাগ থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। সাতক্ষীরার ভোমরা বন্দর থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতগামী একটি পণ্যবাহী ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় রায়হান ট্রাকের পেছনের চাকার সঙ্গে আটকে বেশ কিছু দূর চলে যায়। এতে তাঁর পা, মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশ ভেঙে, থেতলে যায়। মারাত্মক আহতাবস্থায় তাকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় কলারোয়া হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: গাজী আশিক বাহার, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার সুজন কুমার দাস উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরায় রেফার করেন। নিহত যুবকের ভগ্নিপতি কলারোয়া হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের প্রভাষক ডাক্তার হাবিবুর রহমান জানান, দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত আবু রায়হানকে কলারোয়া হাসপাতাল থেকে সাতক্ষীরায় রেফার করা হয়। সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে খুলনা সার্জিক্যাল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাবিবুর রহমান আরও বলেন, শুক্রবার দুপুরে বাটরা মাদ্রাসা চত্ত্বরে জানাজা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। এদিকে দুর্ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ট্রাকসহ ড্রাইভার কলারোয়া পৌরসভার তুলশীডাঙ্গা গ্রামের মায়েনদ্দিনের ছেলে শহিদুল ইসলাম (২৮) ও হেলপার সাতক্ষীরার সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গা গ্রামের আবদুল মতিন মঈন উদ্দিনকে (২৩) আটক করেছে।



Comments are Closed

%d bloggers like this: